আমের ভেতরে এসব সাদা সাদা পোকা কিভাবে আসে?

অফিস ডেস্ক

আম কাটলে অনেক সময় জ্যান্ত পোকা পাওয়া যায়। অথচ আমে কোনো ছিদ্র নেই। আমের ভেতরে এসব সাদা সাদা পোকা কিভাবে আসে?

আমের যখন মুকুল আসে, ঐ সময়টাতে আপনি হয়ত লক্ষ করবেন মৌমাছিরমত কিছু পোকা একত্রিত হয়ে কোন স্থানে ঘুরছে । আমের ফুল ফোটা ও কুঁড়ি আসা পর্যন্ত এদের দেখা যায় । আম যখন কুঁড়ি থেকে গুটিতে রুপান্তরিত হতে শুরু করে, তখন আর ঐ পোকাগুলি দেখা যায় না । ঠিক কিনা ??? আপনি আমের কুঁড়ি ও গুটির গায়ে কালো-কালো দাগ লক্ষ করবেন । ঐ দাগের ভিতরে ঐ পোকাগুলো ডিম পেড়ে রেখে ওরা চলে যায় । যখন আমের গুটিগুলো বড় হয়, তখন ঐ দাগগুলো আস্তে-আস্তে মিলিয়ে যায় । তার মানে ঐ ডিমগুলো ভিতরে চলে যায় ! সময়ের সাথে-সাথে যখন মুকুল থেকে কুঁড়িগুলো গুটি হয়ে আস্তে-আস্তে আমে পরিণত হয়, তখন ঐ মুকুলের ভিতরের ডিমগুলো পরিণত হওয়ার পর সুককীট, মুককীট বা প্রথম অবস্থা, দ্বিতীয় অবস্থা থেকে পূর্ণাঙ্গ পোকায় রুপান্তরিত হয় । তারপর, যখন সে পূর্ণাঙ্গ পোকা; তখন তো তার খাদ্যের প্রয়োজন !!! তখন সে আম খেতে শুরু করে । পোকা হওয়া আমের ভিতরে যে কালো-কালো গুড়ো কিছু পদার্থ দেখা যায়, তা হল ঐ পোকার আম খাওয়ার পরে ত্যাগ করা মল ! এ পর্যায় যখন আমের ভিতরকার তরল অক্সিজেন শেষ হয়ে ঐ ফাকা অংশটুকু তার পরিত্যাক্ত কার্বন-ডাই-অক্সাইডে গরম হয়ে ওঠে, তখন সে বাহিরের মুক্ত পরিবেশ ও অক্সিজেন নেয়ার জন্য আম ছিদ্র করে বাহিরে বেরিয়ে আশে ।
গাছ থাকাকালিন সময়ে যেহেতু কিছু তরল অক্সিজেন পাওয়া যায়, যেটা ঘর থেকে পাওয়ার কোন সুযোগ নাই; সেহেতু আম পেড়ে ঘরে রাখলে গাছের থেকে দ্রুততম সময়ে আমে ছিদ্র হতে শুরু করে !!! এ জন্য আমাদের বৃহত্তর উত্তর অঞ্চলের বাণিজ্যক ভিত্তিতে আম চাষীরা "মুকুল, কুঁড়ি, গুটি, বতী" হওয়ার সময়সহ তিন-চার বার আমে স্প্রে করে থাকেন । এর ফলে বাণিজ্যক ভিত্তিতে যে সব আম বাজারজাত করা হয়, অর্থাৎ আমরা বাজার থেকে বিভিন্ন জাতের মানে লেংড়া, ফজলি, গোপালভোগ -সহ যে সব আম কিনে থাকি, তাতে কোন পোকা পাই না !!! কেমন ??? যদি কোন ভুল পেয়ে থাকেন, জানাবেন দয়া করে । ধন্যবাদ সবাইকে ।



SHARE THIS

0 Comments:

মতামতের জন্য ধন্যবাদ।