প্রোগ্রামিংয়ে মেয়েরা এগিয়ে আসলে আগামী প্রজন্ম সমৃদ্ধ হবে

ঢাকা, ৫ শ্রাবণ (২০ জুলাই)

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, কম্পিউটার প্রোগ্রামিং একটি সৃজনশীল কাজ। এ কাজে দেশের মেয়েরা যত বেশি এগিয়ে আসবে, তাদের হাত ধরে জ্ঞানভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠায় আগামী প্রজন্ম তত বেশি তৈরি ও সমৃদ্ধ হবে। ডিজিটাল শিল্প বিপ্লব বা চতুর্থ শিল্প বিপ্লব-সহ রোবটিক, আইওটি, বিগডাটা কিংবা ব্লকচেইনের মতো প্রযুক্তির বিস্ময়কর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রোগ্রামিং কার্যকর একটি হাতিয়ার বলে উল্লেখ করেন মন্ত্রী।

মন্ত্রী গতকাল নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে এসিএম-ইন্টারন্যাশনাল গার্লস প্রোগ্রামিং কনটেস্ট ২০১৯ এর বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। 
আশির দশকে দেশে কম্পিউটারে বাংলা হরফের প্রবর্তক মোস্তাফা জব্বার বলেন, প্রোগ্রামিং কঠিন কোনো কাজ নয়। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের প্রযুক্তি যাই আসুক না কেন, প্রযুক্তির চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে টিকে থাকার জন্য প্রোগ্রামিং প্রয়োজন। তাই প্রোগ্রামিংকে উৎসাহিত করতে গতবছর থেকে আমরা জাতীয় পর্যায়ে শিশু-কিশোর প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা শুরু করেছি।
দেশে নারী শিক্ষার অগ্রগতির চিত্র তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, নারী শিক্ষা বিস্তারে এবং তাদের ক্ষমতায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার যুগান্তকারী বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। মেয়েদের প্রোগ্রামিংয়ে আগ্রহ বাড়ছে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিকাশে গত দশ বছরে বাংলাদেশের সফলতা বিশ্বে একটি অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত বলে তিনি উল্লেখ করেন। 
অনুষ্ঠানে নর্থ সাউথ বিশ^বিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক আতিকুল ইসলাম, প্রো-ভিসি জি ইউ আহসান এবং সহযোগী অধ্যাপক সাজ্জাত হোসেন বক্তৃতা করেন। দেশের ৪০টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষার্থীরা এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন।

SHARE THIS

0 Comments:

মতামতের জন্য ধন্যবাদ।