শিক্ষা হতে হবে আনন্দদায়ক

ঢাকা, ৭ ভাদ্র (২২ আগস্ট)

শিক্ষামন্ত্রী ডা দীপু মনি বলেছেন  ডিজিটালশিক্ষার যুগে, আমি বিশ্বাস করি যে, বাচ্চাদের শেখার উপকরণগুলো সহজবোধ এবং উপভোগ্য করে তৈরি করা দরকার। পড়াশোনা সবসময় পরীক্ষাকেন্দ্রিক হওয়া উচিত নয়, বরং নীতিবান, দায়িত্বশীল এবং সংবেদনশীল মানুষ গড়তে যেসব শিক্ষা দরকার তার প্রয়োজনীয়তা অনেক, যেমনটা জাতির জনক স্বপ্ন দেখেছিলেন।

তিনি গতকাল একটি লাইভ স্ট্রিমড ওয়েবিনারের মাধ্যমে হারস্টোরি ফাউন্ডেশন ও চলো পড়ির এর  যৌথ প্রযোজনায় ‘চাররঙের বাসা’ নামক  শর্ট স্টপ-মোশন এনিমেশনের উদ্বোধনের সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। 

হারস্টোরি ফাউণ্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক জেরিন মাহমুদ হোসেনের সঞ্চালনায় এই সময় আরো যুক্ত ছিলেন আসাদুজ্জামান নূর, শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপ-উপাচার্য ডঃ নাসরিন আহমদসহ আরো অনেকেই ।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এই স্টপ মোশন অ্যানিমেশনটি শিশুদের জন্য উপযোগী মাধ্যম, ভাষা এবং স্টাইল ব্যবহার করে সংবিধানের চারটি স্তম্ভকে তুলে ধরা হয়েছে। এনিমেশনটি বঙ্গবন্ধুর নেতা হিসেবে প্রতিষ্ঠা এবং তাঁর দর্শনগঠনের কাহিনী অনুসরণ করেছে। যেসব মূল্যবোধ ও রাজনৈতিক আদর্শ, যা বাংলাদেশের সংবিধানের ভিত্তি হিসাবে কাজ করে। এই এনিমেশন তরুন প্রজন্মকে সেসব সম্পর্কে শিক্ষিত করে তুলবে। 

শিক্ষাউপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, ঐতিহাসিক শোকের মাসে চাররঙের বাসার প্রযোজনাকে আমি সাধুবাদ জানাতে চাই, যেখানে সময়োপযোগী ও শিশুবান্ধব একটি এনিমেশনে সংবিধানের পেছনে বঙ্গবন্ধুর মৌলিক কাজগুলো দেখানো হয়েছে। 

উল্লেখ্য, শিশুদের উপযোগী রঙ্গীন রূপক এবং প্রতীক দিয়ে এনিমেশনটি তুলে ধরেছে বঙ্গবন্ধুর রাজনীতির চারটি মূলনীতি-গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র, ধর্ম-নিরপেক্ষতা, এবং জাতীয়তাবাদ, যেখানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটি ছোটমেয়েকে পাখির বাসা তৈরি শেখান। পাশাপাশি তিনি বলে যান সেসব পেছনের গল্প, যা জাতির জন্য একটি কাঠামো পরিকল্পনায় তার নীতি-আদর্শকে প্রভাবিত করেছিল।


SHARE THIS

0 Comments:

মতামতের জন্য ধন্যবাদ।